একবিংশ শতাব্দীতে প্রবেশের উদ্দীপনা ও তারুণ্যের সৃজনশীলতা নিয়ে যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো স্বমহিমায় প্রদীপ্তমান, নতুন যুগের সঙ্গে সেতু-বন্ধন রচনায় অগ্রগামী ভূমিকা যাদের প্রত্যয়, রামপুরা একরামুন্নেছা ডিগ্রি কলেজ এদের মধ্যে অন্যতম। মহানগরীর ব্যস্ত কোলাহলমুক্ত প্রকৃতির স্নিগ্ধ পরিবেশে রামপুরা এলাকায় অবস্থিত এই কলেজটি 1981 সনে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং নিরন্তন প্রচেষ্টার মধ্য দিয়ে অদ্যাবধি শিক্ষার্থীদের মধ্যে আলো বিকশিত করে নিজস্ব ঐতিহ্য দন্ডায়মান। 1981 সালে কলেজটির জন্মলগ্ন সহশিক্ষা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে কলেজের অগ্রযাত্রা শুরু হয়েছিল। শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার পথকে প্রসারিত করে তারুণ্যোজ্জ্বল আলোর দ্বারে পৌঁছে দেয়ার দৃঢ় মানসে 1995-96 শিক্ষাবর্ষ হতে কলেজটিকে ডিগ্রি কলেজে উন্নীত করা হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত 1997 সালের ডিগ্রি পরীক্ষায় এ কলেজের ছাত্রীরা প্রথমবারের মত অংশগ্রহণ করে এবং মানবিক বিভাগের একজন ছাত্রী মেধা তালিকায় অষ্টম স্থান অধিকার করে কলেজটিকে উঁচু মর্যাদায় আসীনকরে। স্থানীয় জনগণের দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে গভর্নিং বডির সভায় 2001-2002 ছাত্রী ভর্তি করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সেই থেকে পৃথক শাখায় এবং পৃথক ভবনে ছাত্র ও ছাত্রীদের পৃথকভাবে অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষের সার্বক্ষণিক তত্ত্বাবধানে শিক্ষাপ্রদান ব্যবস্থা পরিচালিত হচ্ছে। ছাত্র-ছাত্রীদের সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি, প্রশাসনিক বিস্তৃতি এবং স্থান সংকুলান সমস্যা নিরসনের লক্ষ্যে টিভি রোডস্থ কলেজের দ্বিতীয় ভবনের কাজ এগিয়ে চলছে। কলেজের দক্ষ ও সূচারু প্রশাসন, পরিচালনা পরিষদের সম্মানিত সদস্যদের সার্বিক সহযোগিতা, অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলীর প্রচেষ্টা ও বিদ্যোৎসাহী সুধীজনের ঐকান্তিকতায় এই কলেজটি একটি প্রগতিশীল শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা লাভ করেছে। আগামী দিনে বৃহত্তর পরিসরে অনার্সহ আধুনিক শিক্ষাকার্যক্রম গ্রহণের মাধ্যমে কলেজটিকে বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে রূপান্তরিত করার পরিকল্পনা ও তার বাস্তবায়নে সক্রিয় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। দ্রুত পরিবর্তনশীল ও চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় একজন সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে নিঃসন্দেহে এটি এক আদর্শ শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান।